বিজ্ঞপ্তি:
দৈনিক শাহনামার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। জাতীয়, রাজনীতি, খেলাধুলা, বিনোদন সহ সকল সংবাদের সর্বশেষ আপডেট জানতে ভিজিট করুন www.shahnamabd.com
সংবাদ শিরোনাম :
বরিশাল মুক্ত দিবসে জেলা আওয়ামী লীগের পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ দন্ডপ্রাপ্তকে বিদেশ নেয়ার কথা বলা দ্বৈত নীতি: প্রধানমন্ত্রী ফোর্বসের প্রভাবশালী নারীর তালিকায় শেখ হাসিনা বরিশালে শের-ই-বাংলা বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নব-নির্মিত শহীদ মিনার এর উদ্বোধন ব‌রিশাল বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ে শীতকা‌লিন ছু‌টি বা‌তিল বরিশাল মুক্ত দিবসে ১শ’ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা ৮ ডিসেম্বর বরিশাল মুক্ত দিবস উপলক্ষে ওয়াপদা কলোনী বধ্যভূমি স্মৃতি ৭১ এ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বরিশাল সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বরিশাল সাংবাদিক ইউনিয়নের আয়োজন চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত  বরিশালে শিক্ষার্থীদের জেলা প্রশাসক দপ্তর ঘেড়াও সহ আন্দোলন অব্যাহত দু’পক্ষের দ্বন্ধের জেরে আমতলী বিআরটিসি বাস কাউন্টার বন্ধ, যাত্রী ভোগান্তি চরমে

কোরআন নিয়ে অবমাননা করে ফেসবুকে কমেন্টস ॥ যুবক আটক মন্দির ভাংচুর

কোরআন নিয়ে অবমাননা করে ফেসবুকে কমেন্টস ॥ যুবক আটক মন্দির ভাংচুর

শামীম আহমেদ ॥ পবিত্র কোরআন শরীফকে অবমাননা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি পোস্টে চরম আপত্তিকর কমে›ন্টস্ করায় উত্তেজিত জনতা মহানন্দ বৈদ্য নামের এক যুবককে আটক করে পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে। পাশাপাশি উত্তেজিত জনতা হিন্দু সম্প্রদায়ের তিনটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দিবাগত রাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের ধুরিয়াইল কাজিরপাড় গ্রামে। আটক মহানন্দ বৈদ্য ওই গ্রামের মৃত্যুঞ্জয় বৈদ্যর পুত্র। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।
পুলিশ ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পবিত্র কোরআন শরীফকে অবমাননা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি পোস্টে চরম আপত্তিকর কমেন্ট করে মহানন্দ বৈদ্য। শুক্রবার সন্ধ্যার পর বিষয়টি স্থানীয় মুসলিম সম্প্রদায়ের কয়েকজন ব্যক্তির নজরে আসলে মুহুর্তের মধ্যে তা ভাইরাল হয়ে যায়। একপর্যায়ে স্থানীয় উত্তেজিত জনতা মহানন্দকে আটক করে থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করে। পরবর্তীতে একইদিন রাতে স্থানীয় জনতা জোটবদ্ধ হয়ে ধুরিয়াইল কাজিরপাড় সার্বজনীন দূর্গা মন্দির, পাশ্ববর্তী হরি মন্দির এবং জগদিশ বৈদ্যর বাড়ির হরি মন্দিরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। এসময় ওই এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে।
স্থানীয় বাসিন্দা প্রশান্ত বালা বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আমরা সকল ধর্মের লোকজন একসাথে বসবাস করে আসছি। সদ্যসমাপ্ত সার্বজনীন দুর্গা পুজার সময়েও সকল ধর্মের লোকজনের মধ্যে সৌহাদ্যপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজ করেছে। যেকারণে কোনধরনের ঝামেলা ছাড়াই আমরা বিজয়া দশমী শেষ করেছি। তিনি আরও বলেন, কোরআন শরীফকে অবমাননা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্টে আপত্তিকর কমেন্টস্কে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনা ঘটেছে। আর এ কমেন্টস্ যে করেছে সে যেই সম্প্রদায়ের হোকনা কেন, আমরা তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।
সার্বজনীন দূর্গা মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুভাষ বৈদ্য জানান, কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে একদল উত্তেজিত জনতা লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালিয়ে মন্দিরের প্রতিমাসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করেছে। এসময় নারী-পুরুষ ও শিশুদের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেন জানান, খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। তিনি আরও জানান, পুরো বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media




All rights reserved by Daily Shahnama
কারিগরি সহায়তা: Next Tech