বিজ্ঞপ্তি:
Welcome To Our Website...
তালতলীর মুন্ঈম শিশু নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনিত

তালতলীর মুন্ঈম শিশু নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনিত

বরগুনার তালতলী উপজেলার এম এ মুন্ঈম সাগর বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে “আন্তর্জাতিক শিশু শান্তিপুরষ্কার -২০২০” এর জন্য মনোনীত হয়েছেন।

মুন্ঈম সাগর তালতলী উপজেলার চামোপাড়া গ্রামের শাহ্ মো. হুমায়ুন সগির ও মোসা. মনিরা বেগম দম্পতির বড় সন্তান।

সে এর আগেও জাতীয় ভাবে ১৫টি পুরস্কার পেয়েছেন। বাংলাদেশ সরকার তাকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন দিয়ে নেদার ল্যান্ড সরকারের পিচ রাইটস কমিটির নিকট সুপারিস পাঠিয়েছে।

মুনঈম সাগর বর্তমানে ঢাকা রেসিডেন্সশিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের বিজ্ঞান শাখার দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। শিশুদের জন্য এটি নোবেল পুরস্কার নামে ক্ষ্যাত।

মুনঈম সাগর তার পারিবারিক ভাবে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ ডিজাবল ডেভেলপমেন্ট ট্রাষ্ট বিডিডিটি নামের একটি সংগঠনের টাউগার্স অব বাংলাদেশ শাখার প্রতিষ্ঠাতা কর্নধার। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে মাত্র ৯ বছর বয়সে অসহায়, গৃহহীন, মাতৃহীন এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সহায়তার জন্য কাজ করছেন।

শুধু বাংলাদেশ নয় পুরো বিশ্বজুড়ে এই অসহায় শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠিার জন্য সংগ্রাম করছেন তিনি।

মুনঈম সাগর জানান, তার ব্যাক্তি জীবন থেকে আঘাত প্রাপ্ত হয়ে তিনি এই সামাজিক কাজটি শুরু করেছিলেন।

মুনঈম জানান, শৈশবে তার দুই বন্ধু খাবার ও ওষুধ না পেয়ে মারা যান। এই ঘটনা তাকে খুব ব্যাথিত করে।

এর পর থেকেই লেখা পড়ার পাশাপাশি প্রায় ৫ হাজার অধিকার বঞ্চিত শিশুদের তাদের অধিকার প্রাপ্তিতে ভূমিকা রেখেছেন।

মুঈম তার এই কাজের স্বীকুতি হিসেবে জাপান সরকারের ‘সেভেন মিতসুবিসি জাপান এএনআইকেকেআই ফেস্ট বেস্ট ক্রিয়েটিভ এ্যায়ার্ড-জাপান সরকার ২০১৩’ এবং বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় সেরা সমাজকর্মী-২০১৭, বেস্ট স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ড-২০১৭, জাতীয় সেরা স্কাউট মোটিভেটর অ্যাওয়ার্ড-২০১৬ পুরস্কারের মতো ১৫টি জাতীয় পুরষ্কার পেয়েছেন।

অধিকার বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে মুনঈম এর অনেক লেখা বাংলাদেশের বিভিন্ন জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। তিনি লেখা পড়ার পাশাপাশি একজন দক্ষ সঙ্গীত শিল্পীও।

মুনঈম এর মা মুনিরা বেগম পেশায় একজন স্কুল শিক্ষিকা। বাবা মো. শাহ মো. হুমায়ুন সগির একজন সরকারী চাকুরীজীবি।

বর্তমানে তারা বরগুনা শহরে বসবাস করেন। তারা তাদের ছেলের জন্য সকলের নিকট দোয়া চেয়েছেন।

মা মুনিরা বেগম জানান, ছোট বেলা থেকেই মুনঈম মানুষের প্রতি দরদী ছিল। অসহায় শিশুদের দেখলে তাদের সহযোগিতার জন্য এগিয়ে যেত।

এমএ মুনঈম সাগর জানান, বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য আমাকে মনোনয়ন দিয়ে নেদারল্যান্ডস সরকারের নিকট সুপারিস পাঠিয়েছে। আমি যাতে সফল হতে পারি তার জন্য দেশ বাসীর নিকট দোয়া প্রার্থনা করছি।

Please Share This Post in Your Social Media




কারিগরি সহায়তা: AMS IT BD