বিজ্ঞপ্তি:
দৈনিক শাহনামার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। জাতীয়, রাজনীতি, খেলাধুলা, বিনোদন সহ সকল সংবাদের সর্বশেষ আপডেট জানতে ভিজিট করুন www.shahnamabd.com
সংবাদ শিরোনাম :
শাহবাগ থানায় মুরাদের বিরুদ্ধে ঢাবি শিক্ষার্থীর অভিযোগ যাবতীয় অপরাধ চিত্র বদলে দিতে সমাজের আস্থাশীল আগুয়ান ভালো মানুষের সহযোগিতা কাম্য – পুলিশ কমিশনার বিএমপি গৌরনদীতে ভ্রাম্যমান আদালতে ভূয়া এমবিবিএস চিকিৎসকের এক বছরের কারাদন্ড ও নগদ অর্থদন্ড আজ বরিশাল মুক্ত দিবস ববিতে ‘বঙ্গবন্ধুর পররাষ্ট্রনীতি ও বিশ্বশান্তি শীর্ষক ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হাফ ভাড়া ও নিরাপদ সড়কসহ ৬ দফা দাবিতে বরিশালে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ সমাবেশ, সড়ক অবরোধ ও মিছিল বরিশালে ভূয়া এমবিবিএস চিকিৎসক আটক ডা.মুরাদ হাসানকে জেলা আ.লীগ থেকে অব্যাহতি, বহিষ্কারের সুপারিশ তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বরগুনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সিল,স্বাক্ষর জাল, গ্রেফতার ১

আমতলীতে ফসলি জমিতে বিদ্যুৎ উপ কেন্দ্র নির্মাণে অধিগ্রহন নোটিশ জমি হারানোর ভয়ে আতঙ্কিত গ্রামবাসী

আমতলীতে ফসলি জমিতে বিদ্যুৎ উপ কেন্দ্র নির্মাণে অধিগ্রহন নোটিশ জমি হারানোর ভয়ে আতঙ্কিত গ্রামবাসী

dav

আমতলী প্রতিনিধি ।
আমতলী উপজেলার সদর ইউনিয়নের চলাভাঙ্গা গ্রামে ত্রি ফসলি জমিতে বিদ্যুৎ উপ কেন্দ্র নির্মাণের জন্য ভূমি অধিগ্রহন কার্যক্রম শুরু করেছে বরগুনা জেলা প্রশাসন। ৪৮.৮৫ একর জমি নির্ধারণ করে শনিবার ২’শ ৮৫ জন জমির মালিককে নোটিশ জারি করা হয়েছে। নোটিশ পেয়ে কৃষকরা জমি হারানোর ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পরেছেন। জমির মালিকদের দাবী জামেলা ছাড়াই যে তারা ন্যায্য মুল্য পান।
জানা গেছে, বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের আওতায় পাওয়ার গ্রিড কোম্পানী অব বাংলাদেশ লিমিটেড’র মাধ্যমে সরকার ৪ শ’ কেভি বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র নির্মাণের জন্য আমতলী সদর ইউনিয়নের ৫১ নং মৌজার চলাভাঙ্গা গ্রাম নির্ধারন করেন। জরিপ এবং যাচাই বাছাই শেষে ভূমি অধিগ্রহনের কার্যাক্রম শুরু করেছে বরগুনা জেলা প্রশাসন কার্যালয়। বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের জন্য ৪৮.৮৫ একর জমির প্রয়োজন। ওই জমি নির্ধারণ করে চলাভাঙ্গা গ্রামের ২৮৫ জন জমির মালিকে শুক্রবার সকালে বরগুনা জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রহন কর্মকর্তা মোঃ মাহফুজুর রহমান এবং সার্ভেয়ার মোঃ আলী হোসেন স্বাক্ষরিত নোটিশ জারি করা হয়েছে। নোটিশ পাওয়ার পরপরই জমির মালিকরা তাদের একমাত্র কৃষি জমি হারানোর ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পরেছেন।
চলাভাঙ্গা গ্রামের গোলাম কিবরিয়া বলেন, আমি ১৫ লাখ টাকা খরচ করে পেঁপে বাগান, মাছের ঘের, লাউ এবং সবজি চাষ করেছি। আমার ঘেরের সব জমি অধিগ্রহন করবে। আমি কিভাবে সংসার চালাবো তা ভেবে পাচ্ছি না।
নাসির খান ও সেকান্দার খান বলেন, মোর ধানের জাগা নাই। বাড়ির যেডু জাগা আছে হেই জাগা সরকার নেওয়ার লইগ্যা নোটিশ দেছে। এ্যাহন মোরা কোম্মে থাকমু হেই চিন্তা হরি।
সেরাজ খান বলেন, আমার ১৩ একর জমি অধিগ্রহনের জন্য নোটিশ দিয়েছে। বাপ দাদার কাইল্যা সব জাগা লইয়্যা যাইবে। মোর গুড়াগাড়া লইয়্যা কি খামু।
ছত্তার হাওলাদার বলেন, মোগো তিন ফসলী জমি বিদ্যুতের লইগ্যা এহন সব লইয়া যাইবে। মোগো জমি জমা আর কিছু রইবে না।
আমতলী সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মোতাহার উদ্দিন মৃধা বলেন, জমির প্রকৃত মালিকরা যাতে ন্যায্য মূল্য পায় এবং কোন জামেলার সৃষ্টি না হয়ে সে জন্য জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সুদৃষ্টি কামলা করছি।
বরগুনা জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের ভূমি অধিগ্রহন কর্মকর্তা মোঃ মাহফুজুর রহমান বলেন, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানী অব বাংলাদেশ লিমিটেড এর বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র নির্মাণে জন্য আমতলী সদর ইউনিয়নের চলাভাঙ্গা গ্রামের ৫১ নং মৌজার ৪৮.৮৫ একর জমি অধিগ্রহন করতে ২৮৫ জন ভূমির মালিককে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media




All rights reserved by Daily Shahnama
কারিগরি সহায়তা: Next Tech