বিজ্ঞপ্তি:
দৈনিক শাহনামার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। জাতীয়, রাজনীতি, খেলাধুলা, বিনোদন সহ সকল সংবাদের সর্বশেষ আপডেট জানতে ভিজিট করুন www.shahnamabd.com
সংবাদ শিরোনাম :
সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল ভেদাভেদ ভুলে রাজপথে সক্রিয় থাকার ঘোষনা বরিশালে জেলা প্রশাসন ও ইউনিসেফ এর সাথে ১০ টি যুব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাঝে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর ১০ কেজি চালের জন্য ভাইয়ের ছেলের ছুরিকাঘাতে কৃষক চাচা খুন জাপানের দুই শিশু এক দিন মা ও পরদিন বাবার সঙ্গে থাকবে বঙ্গবন্ধু হত্যায় জিয়াকে আসামি করতে চেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী ছাঁটাই কর্মীদের চাকরিতে বহালের নির্দেশ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ইভ্যালির চেয়ারম্যান ও এমডি গ্রেফতার এমপি শাওনের রোগমুক্তি কামনায় বাংলাদেশ   আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের দোয়া ও মিলাদ মাহফিল মেহেন্দিগঞ্জে বিদ্যুৎপৃষ্ঠ হয়ে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু মেহেন্দিগঞ্জ প্রেসক্লাব নির্বাচন-২০২১ সভাপতি/সম্পাদকসহ ১১ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

বিসিসি ২৮ নং ওয়ার্ড নির্বাচনে ঋন খেলাপির দায়ে কাউন্সিলর প্রার্থী হুমায়ুনের মনোনয়ন বাতিল

বিসিসি ২৮ নং ওয়ার্ড নির্বাচনে ঋন খেলাপির দায়ে কাউন্সিলর প্রার্থী হুমায়ুনের মনোনয়ন বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

বরিশাল নগরীর ২৮ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে উপ-নির্বাচনে মনোনয়নপত্র মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) যাছাই বাছাই সম্পন্ন হয়েছে। যাছাই-বাছাইয়ে বিএনপির প্রার্থী মো: হুমায়ুন কবির এর মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন নির্বাচন কমিশন। সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নুরুল আলম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নগরীর ২৮ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে উপ-নির্বাচনে ৪ জন প্রার্থীর মধ্যে একজনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। সূত্র বলছে, জনতা ব্যাংক কর্পোরেট শাখায় বিএনপির প্রার্থী হুমায়ুন কবিরের ৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকা ঋন খেলাপির দায়ে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম নির্বাচন কমিশনে ঋন খেলাপির বিষয়টি অবগত করেন। এছাড়া হুমায়ুন কবির কৃষি ব্যাংকে ঋন খেলাপি রয়েছে। মনোনয়নপত্র যাছাই-বাছাইয়ের খবর পেয়ে কৃষি ব্যাংকের এক কর্মকর্তা সেখানে যায়। কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তার আসার বিষয়টি টের পেয়ে হুমায়ুন কবির কৌশলে তাকে নিয়ে গোপনস্থানে নিয়ে যায়। অত:পর কৃষি ব্যাংকের ওই কর্মকর্তার সঙ্গে গোপন বুনিবনার দেনদরবারের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন থেকে পাঠিয়ে দেন। এছাড়া বিএনপির প্রার্থী হুমায়ুন কবির নির্বাচন কমিশনে যে স্থায়ী ঠিকানার তথ্য দিয়েছে, তাও সঠিক নয়। স্থানীয়রা জানায়, হুমায়ুন কবির ২৮ নং ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দা নন। তিনি কমিশনে যে ঠিকানা দিয়েছে, সেখানে তিনি থাকছেন না। এই হুমায়ুন কবির বসবাস করছেন নগরীর বগুড়া রোডের ইডেন ক্লিনিক লাগোয়াস্থানে।
স্থানীয়দের অভিযোগ, এই হুমায়ুন কবির মূলত: জামায়াত-শিবিরের কর্মকান্ডের সঙ্গে সম্পূক্ত। জামায়াত-শিবিরের বিভিন্ন ধরণের নাশকতামূলক কর্মকান্ডে তিনি অর্থের যোগানসহ বিভিন্নভাবে সহায়তা করছেন। স্থানীয়রা তাকে বয়কট করেছন।
একটি সূত্র জানায়, হুমায়ুন কবিরের গ্রামের বাড়ি মেহেন্দিগঞ্জে। তার পিতার নাম ফজলে আলী। ফজলে আলীর ভাই হযরত আলীর চহৎপুর এলাকায় বিশাল সম্পত্তি ছিল। একপর্যায়ে হযরত আলী তার ভাই ফজলে আলীকে এক একর সম্পত্তি দানও করেন। পরবর্তীতে চাচা হযরত আলী মারা যাওয়ার পর ওই সম্পত্তি হুমায়ুনের নিজ নামে ডিগ্রী করে ভোগ দখল করছেন। হুমায়ুনের জালজালিয়াতির মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। স্থানীয় সূত্রগুলো বলছে, এই হুমায়ুনের বিরুদ্ধে জাল জালিয়াতিতে অপরের সম্পত্তি জবর দখল করার অভিযোগ রয়েছে। এলাকায় হুমায়ুন ভূমিদস্যু হিসেবেই পরিচিত।

Please Share This Post in Your Social Media




All rights reserved by Daily Shahnama
কারিগরি সহায়তা: Next Tech