বিজ্ঞপ্তি:
দৈনিক শাহনামার অনলাইন ভার্সনে আপনাকে স্বাগতম। জাতীয়, রাজনীতি, খেলাধুলা, বিনোদন সহ সকল সংবাদের সর্বশেষ আপডেট জানতে ভিজিট করুন www.shahnamabd.com
সংবাদ শিরোনাম :
লালমোহনে নদীতে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে জেলেকে পিটিয়ে হত্যা, আহত-৫ গৌরনদীতে কুল চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে কৃষকেরা বাকেরগঞ্জে শিক্ষার্থীদের টিকাদান কেন্দ্রে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিধি বরিশালে পরীক্ষা শুরুর দাবীতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ রাইস ট্রান্সপ্লান্টে ধানের চারা রোপণ করেন জেলা প্রশাসক  নদীতে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের! জেলেকে পিটিয়ে হত্যা, আহত-৫ বরিশালে পাঁচ বছরের গ্যারান্টি দিয়ে সড়ক ও ড্রেন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আরও ১৮ জনের মৃত্যু গৌরনদীতে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার কমিটি গঠন কলাপাড়ায় সিপিপি’র নতুন নারী স্বেচ্ছাসেবকদের সরঞ্জাম বিতরণ

ববি ছাত্রীকে মারধরের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত গ্রেফতার

ববি ছাত্রীকে মারধরের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত গ্রেফতার

বরিশাল প্রতিনিধি:
বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) ছাত্রী ও তার স্বামীকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত জাহিদ হোসেন জয়কে মাদারীপুর থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার রাত ১০টায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের বন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মঙ্গলবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন আনন্দ বাজারে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী ও তার স্বামীকে মারধরের ঘটনার মামলায় জয়কে গ্রেফতার করা হয়েছে। জয় মামলার প্রধান আসামী। বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর খোরশেদ আলম বলেন, মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্নিকটে ন্যাক্কারজনক ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট প্রধান অভিযুক্ত গ্রেফতার হয়েছে এটা স্বস্তিদায়ক খবর। ঘটনার যথাযথ তদন্তের মাধ্যমে দ্রুত আইনি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে বলে আশারাখি। পুলিশ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য। ভবিষ্যতে এ ধরণের ঘটনা যাতে না ঘটে সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সব মহলের দায়িত্বশীল আচরণ প্রত্যাশা করছি।
প্রসঙ্গত, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন আনন্দ বাজারে এক ছাত্রী ও তার স্বামীকে মারধরের অভিযোগ ওঠে স্থানীয় জাহিদ হোসেন জয় ও চরকাউয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সাইদুল আলম লিটন সহ তাদের সহযোগিদের বিরুদ্ধে। পরে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী জয় ও লিটনের বাড়ি ঘর ভাঙচুর এবং লিটনের বৃদ্ধ পিতা মাতাকে মারধরের অভিযোগ ওঠে। ভাঙচুর করা হয় শেখ রাসেল পাঠাগারও। সেখানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুরের অভিযোগ ওঠে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে। ভাঙচুরের পর শিক্ষার্থীরা ঢাকা পটুয়াখালী মহাসড়ক বন্ধ করে দেয় এক ঘন্টার জন্য। পরবর্তীতে প্রশাসনের আশ্বাসে সড়ক অবরোধ থেকে সরে যায় শিক্ষার্থীরা এবং আলটিমেটাম দেওয়া হয় জয় ও লিটনকে গ্রেফতারের জন্য। রাতেই ৬ জনকে আসামী করে মামলা করে করেন ঐ ছাত্রীর স্বামী।

Please Share This Post in Your Social Media




All rights reserved by Daily Shahnama
কারিগরি সহায়তা: Next Tech